মুভি রিভিউ - GONE GIRL

 
 অনেক  দেরীতে হলেও দেখবো দেখবো করে অবশেষে পাক্কা আড়াই ঘন্টার মুভিটা দেখে ফেললাম । আমি জিলিয়ান ফ্লিনের লেখা একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে ‘গন গার্ল’ মুভিটির কথা বলছি । যে বন্ডগার্ল রোজামন্ড পাইককে আমার বিন্দুমাত্র পছন্দ হয়নি সেই বন্ডগার্লই (ডাই অ্যানাদার ডে) গনগার্ল এ দুদার্ন্ত অভিনয় করে আমার মন জয় করে নিয়েছে । এর জন্য অবশ্যই পরিচালক ফিঞ্চার কৃতজ্ঞতা স্বীকার করতেই হবেই । চিত্রনাট্য অনুযায়ী অভিনেত্রী হতে সঠিক অভিনয়টুকু বের করে নিয়ে আসার জন্য ।
.
আজকালকার মুভিগুলো সচরাচর আড়াই ঘন্টার হয় না । তাই আমরাও মানসিক ভাবে আড়াই ঘন্টার মুভি দেখতে অভ্যস্ত নই । তবে হলিউড ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডের ১৮ তম আসরের সেরা মুভিটিকে একবার দেখতে বসলে উঠে যাওয়া বড়ই মুসকিল ।
.



কাহিনী শুরু নিককে নিয়ে । নিক ও এমির সুখের সংসার । পুরো শহরের সবাই তাদের এই সুন্দর সুখী পরিবারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ । ৫ম বিবাহবার্ষিকীতে সে বাসায় ফিরে দেখতে পায় তার বিখ্যাত লেখিকা স্ত্রী এমি ঘরে নেই । ঘরের জিনিসপত্রও ভাঙ্গা । স্বাভাবিকভাবেই পুলিশকে জানালো হলো । এমি বিখ্যাত লেখিকা হওয়ার কারণেই মিডিয়াও ফলাও করে ওর খবর প্রকাশ করতে শুরু করলো ।





অপ্রস্তুত নিক অসংলগ্ন কথা বার্তা বলাতে পুলিশ , এমির শুভাকাঙ্খী ও তার ভক্তদের মনে এই সন্দেহ জাগে যে নিকই তার স্ত্রীকে খুন করেছে। মিডিয়াও নিককে ঘিরে এমনই এক রহস্যের সৃষ্ট করে । এর মাঝে এমির ব্যাক্তিগত জার্নাল খুঁজে পায় পুলিশ । যেখানে সন্দেহের তীর নিককেই বিদ্ধ করে । নিক ক্রমানয়ে বুঝতে পারে তাকে কেউ একজন ক্রমাগত ফাঁসিয়ে যাচ্ছে । অবশেষে বুঝতে পারলো কে এই কার্লপ্রিট ।
.
এটি আর কেউ না তার প্রিয়তম স্ত্রী এমি স্বয়ং । কিন্তু কেন ?




.
আর বলবো না .... মজাটা স্পইল হয়ে যাবে । তবে মনে রাখবেন এই মুভির পরাতে পরাতে রহস্য । একদম খাঁটি মিস্ট্রি থ্রিলার । নিঃসন্দেহে ‘গন গার্ল’ ফিঞ্চারের আরেকটি মাস্টারপিস । অভিনব এক স্টাইলে এ মুভিটি তৈরি করা হয়েছে । কেউ যদি মুভিটি না দেখেন তাহলে কিন্তু মিস করবেন

0 comments:

Post a Comment