পত্রপাঠ

আজকাল তোমার চিঠি না পেলে ভালো লাগে না,             বিকেলের পড়ন্ত লালচা রোদে পিঠ দিয়ে ... না, কারোর জন্য কিছু বসে থাকে না, আমিও থাকি না,             সময়-স্রোত-ইচ্ছা-স্বপ্ন, আমি না চাইলেও যায় চলে । 

 এখন আমি আধবোজা চোখে বেশ দেখতে পাই তুমি আর তোমার বিরহ কে, একদম পাশাপাশি; সময়ে-অসময়ে বুকফাটা যন্ত্রনা অস্থির করে আমাকে, বলে - সর্ব্বনাশি, আমি কি তোকে ভালোবাসি ?  : ঝিমিয়ে পড়া সময়টা যে বড্ডো বেমানান আমার কাছে,             কখন যে মনের ফাঁক-ফোকরে তুই ঢুকে যাস্             আর গোলাপ হয়ে লুকিয়ে পড়িস মনের বাগানে,             আমি হিসেব রাখতে পারি না বলপেন আর কাগজে।   শুয়ে শুয়ে তাই ভাবি - সময় মানেই এগিয়ে চলা পাহাড় যেমন মিশে যায় নীলে দুই বাহু প্রসারিত করে, দুর্গম খাদ বেয়ে যেমন গড়িয়ে নামে উন্মত্ত ঝর্না রূপের অঝোর ধারায় আমার সবকিছু তছনচ করে;



 জানিস পাগলী, সেই ঝর্ণার বুকের মাঝে আছে একটা কষ্ট জমা পাথর, সময়ের সাথে একদিন রাশি রাশি বালিকণা হয়ে             ভেঙে পড়বে তোর চোখের কোনে,             তখন নাহয় ফেলে দিস             ঠিকানা না রেখে ।

0 comments:

Post a Comment