বাদামি রঙের বুনোফুল



সাঁকোর এপারে দাঁড়িয়ে
এ এক অন্য ডাকবিভাগ,
ছোট ছোট পাখিরা ঠোঁটে করে বয়ে নিয়ে যাচ্ছে চিঠিপত্র।

সেই সময়, আকাশ ভিজিয়ে সূর্য অস্ত চলে গেছে
বসন্তের পলাশও ঝরে গেছে একে একে।
দিনশেষে যখন তারা পোস্ট-অফিসের ছাদে ফিরে যাচ্ছে
দেখি বৃদ্ধ পোস্টমাস্টার মানুষের চোখের জলের মতো
সোনালি গমের দানা ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

মেঘে মেঘে ভেসে যায়
তৃতীয় নয়ন...
সঙ্গে নিশিডাক চলে
নিঝুম বৃক্ষের শীর্ষ ছুঁয়ে ছুঁয়ে।
পাতা জুড়ে রয়ে গেছে অনন্ত অভিমান
সেই সময়, আকাশ ভিজিয়ে সূর্য অস্ত চলে গেছে
বসন্তের পলাশও ঝরে গেছে একে একে।
এরকম সন্ধেবেলা কেউ কেউ বাড়ির ঠিকানা
                                    হারিয়ে ফেলে,
বেপাড়ার ধারে একা গাছ 
গাছের তলায় নীরবতা,
যতটুকু বাকি থাকে, ততটুকু চলে যায়
অসংখ্য ঝিঁঝির দখলে।
চেতনার কণাগুলো তখনও হাতড়ে খোঁজে
রূপকথা।।




0 comments:

Post a Comment