দুটি কবিতা



হয়তো বা ভুল আমার'ই ছিল



সেই থেকে দুফোটা অশ্রু ভেজা পথে যাত্রা আমার
অনেকটা রানারের মতো তাঁর কাঁধে খবরের বোঝা
আমার কাঁধে ফুলে মুড়ানো কার যেন একটি দীর্ঘ নিঃশ্বাস ।

পায়ে-পায়ে এগিয়ে যাই পথ যেন পুরোয় না আমার
পিছু পিছু দেয়ে আসে সচল -অন্ধকার
কার অই পবিত্র অভিশাপ কিছুতেই সঙ্গ ছাড়ে না আমার ।

 হয়তো বা ভুল আমারই ছিল,কেন যে ফুলের গন্ধ নিতে গেলাম ।



তবুও উঁকি দেয়

                 
কাল রাতে কে যেন আবারও এসে ছিল জানালায়
চিত্রকর তার মুখ আঁকতে গিয়ে আঁকলেন চাঁদ
রাতভর কবিতা লিখে কবি কাটালেন এক নির্ঘুম রাত
তিনিও লিখলেন চাঁদের মতো তুমি নাকি শুধু-ই দেখার ।

মরমী কবি গেয়ে ছিলেন তাঁর লেখা জীবনের সেরা গান
বসন্ত হাওয়ায় বনফুলের মতো ঝরে ছিল নামহীন আবেগ
তোলপাড় করে ভেঙ্গে ছিল রাতের স্তব্ধতা।

দুষ্প্রাপ্য তবুও চাঁদ উঁকি দেয় ,দখিনা হাওয়া বয় জানালায়
বৃক্ষে বৃক্ষে ফুলের সওদা হয় ,কেউ আবার ফুলহীন হাতে
একাকী ফিরে যায় ,কেউ দাঁড়িয়ে থাকে নির্জন আঙিনায়। 





0 comments:

Post a Comment